ভূমিকম্পে দরবার হল ছেড়ে বঙ্গভবন চত্বরে রাষ্ট্রপতি

ভূমিকম্পে দরবার হল ছেড়ে বঙ্গভবন চত্বরে রাষ্ট্রপতি

মঙ্গলবার বিকাল ৩টার কিছু পর। বঙ্গভবনে তখন নির্বাচন কমিশন নিয়ে বাংলাদেশ তরিকত ফেডারেশনের সঙ্গে কেবল আলোচনা শুরু করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

বৈঠক যখন মাত্র ৭-৮ মিনিট হয়েছে তখনই ভূমিকম্পের ধাক্কায় দুলে ওঠে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশ। বঙ্গভবনের কর্মকর্তারা তো বটেই, রাষ্ট্রপতিসহ বৈঠকে অংশ নেওয়া নেতারাও টের পান ভূমিকম্পের ঝাঁকুনি।

এ অবস্থায় উপস্থিত নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের পরামর্শে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও বৈঠকে অংশ নেওয়া তরিকত ফেডারেশনের নেতারা বেরিয়ে আসেন দরবার হল থেকে। তারা এসে অবস্থান নেন বঙ্গভবনের সামনের চত্বরে।

নির্বাচন কমিশন গঠন উপলক্ষে রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে আয়োজিত সংলাপে যোগ দিতে এমনই অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছিলেন তরিকত ফেডারেশনের মহাসচিব এম এ আউয়াল।

 

বাংলা ট্রিবিউনের কাছে সেই অভিজ্ঞতার কথা বর্ণনা করতে গিয়ে বলেন, ‘বৈঠকের মাত্র ৭-৮ মিনিটের মধ্যেই এ ঘটনা। ভূমিকম্প হলে কর্মকর্তারাই রাষ্ট্রপতিকে নিয়ে বাইরে আসেন।

 

আমরাও তাদের সঙ্গে ভবনের সামনের অংশ চলে আসি। তবে কোনও ধরনের বিপদ হয়নি।’ এ সময় বঙ্গভবনের চত্বরে সাত-আট মিনিট অবস্থানের পর দরবার হলে ফিরে গিয়ে বৈঠক শেষ করেন বলে জানান আউয়াল।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের সূত্র অনুযায়ী, মঙ্গলবার (৩ জানুয়ারি) বাংলাদেশ সময় বিকাল ৩টা ৯ মিনিটে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে এই ভূকম্পন অনুভূত হয়।

রিখটার স্কেলে এই ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৫.৫। এর উৎপত্তিস্থল ছিল ত্রিপুরার আগরতলার কাছে আম্বাসা থেকে ১৯ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে। এর গভীরতা ছিল ৩৬.১ কিলোমিটার।